July 29, 2021, 2:09 am

এবারও কি সভাপতি নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন এ টি এম ফয়েজ উদ্দিন ?

কাজী মোঃ জয়নুল হক :  সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির বার্ষিক নির্বাচন আসন্ন। নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাপ শুরু হয়েছে। প্রতিবারের মত এবারও গুরুত্বপূর্ণ সভাপতি পদ নিয়ে ভোটারদের মধ্যে কৌতুহল তৈরী হয়েছে। সভাপতি পদে এবারের নির্বাচনে শুরুতে বর্তমান সভাপতি এডভোকেট এ টি এম ফয়েজ উদ্দিন, দুই বারের নির্বাচিত সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট অশোক পুরকায়স্থ, আরেক সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সারওয়ার আহমেদ চৌধুরী আবদাল এবং সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট সামছুল ইসলামের প্রতিদ্বন্ধীতার জোড় প্রস্তুুতি ছিল। সেই লক্ষ্যে এই চার জন্য প্রার্থী ভোটারদের নিকট তাদের প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তাদের মধ্যে সম্প্রতি এডভোকেট অশোক পুরকায়স্থ এবং এডভোকেট সামছুল ইসলামের প্রচার প্রচারনা আকস্মিক স্তবির হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে বর্তমান সভাপতি এডভোকেট এ টি এম ফয়েজ উদ্দিন ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সারওয়ার আহমেদ চৌধুরী আবদাল এখন ও ভোটার মাঠে তৎপর রয়েছেন। তারা প্রার্থীদের বাসার বাসায়, ব্যক্তিগত চেম্বার, কোর্ট প্রাঙ্গনে তাদের পক্ষে ভোট চাচ্ছেন। সেই নিরিখে সিলেট জেলা বারের বার্ষিক নির্বাচন মূলত দ্বিমুখী প্রতিদ্বন্ধীতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আওয়ামী ঘরনার প্রার্থী এডভোকেট সারওয়ার আহমেদ চৌধুরী আবদাল এবং বিএনপি সমর্থিত বর্তমান সভাপতি এডভোকেট এ টি এম ফয়েজ উদ্দিন নিজ নিজ স্থানে শক্তিশালী অবস্থানে আছেন। সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আওয়ামী পন্থি এডভোকেট সারওয়ার আহমেদ চৌধুরী আবদাল নিজ দলের ভোটারদের এক বৃহৎ অংশের ভোট প্রত্যাশা করছেন। বার নির্বাচনকে সামনে রেখে জোড় প্রস্তুতি শুরু হয়েছে আওয়ামী পন্থি ভোটারদের মধ্যে । ইতিমধ্যে মাঠে নিরবে কাজ করছেন দলীয় ভোটারা। এদিকে নির্বাচন সামনে (৭নং পৃষ্ঠায় দেখুন) রেখে কাজ শুরু করেছেন দলীয় দায়িত্ব প্রাপ্ত ভোটারা। দিচ্ছেন প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা। তবে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দলীয় কিছু ভোটার নিজ দলের বিপক্ষে কাজ করছেন। ভোটাররা দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থি তৎপরতা না করলে এবং বৈরি ভোট কাস্ট না হলে সভাপতি পদে এডভোকেট সারওয়ার আহমেদ চৌধুরী আবদালের জয় নিশ্চিত মনে করছে সংশ্লিষ্ট সূত্র। অন্যদিকে বিগত নির্বাচনের অভিজ্ঞাতা থেকে দেখা যায় আওয়ামী পন্থি এডভোকেট ¯্রােতের বিপরীতে নির্বাচন করে জয় লাভ করেছেন। নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক আইনজীবীরা জানান, দলীয় ভোট যদি এডভোকেট সারওয়ার আহমেদ চৌধুরী আবদালের বিপক্ষে না যায় তাহালে তার জয় লাভের সম্ভাবনা আছে। অন্যদিকে বিএনপি পন্থি প্রতিপক্ষ সভাপতি পদপ্রার্থী বর্তমান সভাপতি এডভোকেট এটিএম ফয়েজ উদ্দিন ভোটের মাঠে শক্ত অবস্থানে আছেন। জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের প্রার্থী হলেও সর্বমহলে তার গ্রহন যোগ্যতা রয়েছে। ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়। জুনিয়র ভোটারদের নিকট তার গ্রহন যোগ্যতা অত্যাধিক। আইনজীবীরা বার সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বা ব্যক্তিগত যে কোন কাজে সহজে তার কাছে যেতে পারেন এবং তিনি সহজে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন। মহামারী করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আইনজীবীদের সার্বিক সহযোগীতার মাধ্যমে সভাপতি হিসেবে প্রশংসা কুঁড়িয়েছেন আইনজীবী মহলে । ২নং বারের আইনজীবী আব্দুস সামাদ জানান, বারের বর্তমান সভাপতি করোনাকালীন সময়ে সাধারণ আইনজীবীদের দুই দফায় প্রথমে বিশ হাজার ও পরবর্তীতে তিন হাজার এক শত টাকা প্রনোদনা প্রদান করেন যা দূযোর্গকালে কল্যাণকর ছিল। এমনকি আইনজীবীদের সার্বিক কল্যাণে কাজ করতে গিয়ে তিনি সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হন। নির্বাচনে এডভোকেট ফয়েজ উদ্দিনের জয়ের সম্ভাবনাই বেশি বলে তিনি মনে করেন। বার সংশ্লিষ্ট ভোটাদের সাথে আলাপ কালে জানা যায়, জুনিয়র বান্ধব আইনজীবী নেতা,করোনাকালীন দূযোর্গময় পরিস্থিতিতে আইনজীবদের কল্যানে উদ্যোগ গ্রহন, গত বারের নির্বাচনের অভিজ্ঞতা, প্রতিদ্বন্ধী শক্তিশালী প্রার্থীদের ভোটের লড়াই থেকে ছিটকে পড়া এবং প্রতিপক্ষ প্রার্থীর বৈরি ভোটের সম্ভাবনার কারনে এবারের নির্বাচনে এডভোকেট এ টি এম ফয়েজ উদ্দিনের জয় লাভের সম্ভাবনা বেশি। সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতিতে এই রকমই কানাঘুষা চলছে। গুঞ্জন উঠেছে ফয়েজ উদ্দিনের জয় লাভের বিষয়ে। অনেকেই বলতে শুনা যাচ্ছে তবে কি এবারও সভাপতি নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন এভাকেট ফয়েজ উদ্দিন ?

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Best It Frim
Design & Developed BY N Host BD